প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / শুধু চালক নয়, সড়কে সকলকে সচেতন হতে হবে’
home-ad-620-x-90

শুধু চালক নয়, সড়কে সকলকে সচেতন হতে হবে’

অনলাইন ডেস্ক :সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে চালকের ভূমিকা রয়েছে কিন্তু একমাত্র চালকের সচেতনতায় সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধ সম্ভব নয়। সকলকেই সচেতন হতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। তিনি বলেন, সব পর্যায়ে আইন না মানার সংস্কৃতিই সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ।

আজ শনিবার (০৬ অক্টোবর) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন (এফডিসি) মিলনায়তনে ‘সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে চালকের সতর্কতা’ নামক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে এই ছায়া সংসদের আয়োজন করে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি। ছায়া সংসদে স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি সরকারি দল ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজি বেসরকারি দল হিসেবে অংশ নেয়।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা এ দেশের বর্তমানে বার্নিং ইস্যু। একটি দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে আন্দোলনও হলো। এরপর আমরা দশ দিন ট্রাফিক সপ্তাহ পালনও করেছি। তাছাড়া গত সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে রাজধানীতে ট্রাফিক সচেতনতা মাস পালন করেছি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশের মহাসড়কগুলোকে অন্যান্য দেশের আঞ্চলিক সড়কগুলোর মতোই। একই সড়কে ৮০ কিলোমিটার গতির যানবাহনের সাথে ৫ কিলোমিটার গতিরও যানবাহন চলে। এটিও মহাসড়কে দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ কিন্তু ওভারটেকিংয়ের কারণে যে দুর্ঘটনা ঘটে সেখানে চালকের অসচেতনতা, নির্বুদ্ধিতা ও অদক্ষতাই দায়ী। চালকদের প্রশিক্ষিত করার জন্য দেশে এখনো কোন প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেনি এবং তাদেরকে পর্যাপ্ত লাইসেন্স সরবরাহের ব্যবস্থা করা হয়নি, যা দুর্ভাগ্যজনক।

আইন না মানার অভ্যাস সবচেয়ে বড় সমস্যা উল্লেখ করে-তিনি বলেন, আইন মানতে না চাওয়ার কারণেই সড়কে দুর্ঘটনার প্রধান কারণ। আমাদের মধ্যে আইন মানার অভ্যাস করতে হবে। তাই দুর্ঘটনা প্রতিরোধে নিজে আইন মানা এবং অন্যকে আইন মানতে উদ্বুদ্ধ করার অনুরোধ জানান তিনি।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*