প্রচ্ছদ / স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা / শিশুকে গোসল করাতে গেলে: যেসব ভুল করতে মানা
home-ad-620-x-90

শিশুকে গোসল করাতে গেলে: যেসব ভুল করতে মানা

অনলাইন ডেস্ক :শিশুকে গোসল করাতে গেলে প্রায় সময় আমরা কিছু ভুল করে থাকি। এসব ভুল করলে বাচ্চার বিপদ হতে পারে। অনেকেই জন্মের পর বাচ্চাকে গোসল করিয়ে দেন, এটি ঠিক নয়। এতে বাচ্চার ঠান্ডা লেগে নিউমোনিয়া পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। জন্মের ৭২ ঘণ্টা পরই বাচ্চাকে গোসল করাতে হয়।

আবার ঠান্ডা লাগার ভয়ে এ গরমেও অনেকে বাচ্চাকে গোসল করান না। এটাও উচিত নয়। বাচ্চাকে নিয়মিত গোসল করালে ক্ষতি নেই। তবে খুব ছোট শিশু, অপরিণত বা কম ওজনের শিশুর ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

অনেকে আবার অনেকক্ষণ সময় নিয়ে বাচ্চার মাথায় পানি ঢালেন। এতেও বাচ্চার ঠান্ডা লাগতে পারে। এ ছাড়া কানে পানি ঢুকে সংক্রমণ হতে পারে। এই গরমেও অনেকে গোসলের পর বাচ্চার গায়ে তেল মাখেন। তবে এতে লাভ হয় না। গোসলের আগে অবশ্য তেল মাখলে ক্ষতি নেই।

অনেকে বড়দের সাবান বাচ্চাদের গায়ে মাখেন। এটাও ঠিক নয়। শিশুদের জন্য কম ক্ষারযুক্ত সাবান ব্যবহার করা উচিত। বাচ্চার গায়ে সাবান লাগানোর পর খেয়াল রাখবেন, সেই সাবান যেন পানি দিয়ে ভালোভাবে ধোয়া হয়। নয়তো গোসল শেষে বাচ্চাকে যখন বাথটাব থেকে ওঠাতে যাবেন, তখন বাচ্চার শরীর সাবানের কারণে পিচ্ছিল থাকায় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বাচ্চার গোসলের পানি থেকেও ঘটতে পারে দুর্ঘটনা। তাই এই পানি যেন খুব গরম না হয়। শিশুকে গোসল করানোর আগে দেখে নিন পানি বেশি গরম কি না। বাচ্চার গোসলের পানি চুলায় গরম করে সেটি বহন করে নিয়ে যাওয়ার সময়ও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ সময় খুব সাবধান থাকুন। বাচ্চাদের এ সময় দূরে রাখুন।

শিশুদের গোসলের পানিতে অ্যান্টিসেপটিক দিলে তাতে উপকারী জীবাণুগুলোও মারা পড়ে। তবে বাচ্চাকে গোসল করাতে গিয়ে এই ভুল করে থাকেন অনেকেই। এমন ভুলগুলো যদি আমরা এড়িয়ে যেতে পারি, তবে গোসল করাতে গিয়ে বাচ্চার কোনো ক্ষতি হবে না। বাচ্চাও থাকবে নিরাপদ।

লেখক : শিশু বিশেষজ্ঞ ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও কনসালট্যান্ট ইনসাফ বারাকাহ হাসপাতাল।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*