প্রচ্ছদ / আর্ন্তজাতিক / পশ্চিমবঙ্গের নাম পাল্টে ‘বাংলা’ রাখার বিল পাস
home-ad-620-x-90

পশ্চিমবঙ্গের নাম পাল্টে ‘বাংলা’ রাখার বিল পাস

অনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের বিধানসভায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলে ‘বাংলা’ রাখার বিল সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়েছে। এখন তা দেশটির কেন্দ্রীয় সংসদ বা লোকসভায় পাঠানো হবে।

বৃহস্পতিবার রাজ্যের বিধানসভায় এ বিল পাস হয়েছে বলে জানিয়েছেন জি নিউজ ইন্ডিয়া।

দেশটিতে কোনো রাজ্যের নাম বদলাতে হলে তাতে লোকসভার অনুমোদন লাগে। এখন ভারতের কেন্দ্রীয় সংসদের দিকেই তাকিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সরকার। সেখানে পাস হয়ে গেলেই পশ্চিমবঙ্গ পরিচিতি পাবে ‘বাংলা’ নামে।

মমতা ২০১১ সালে মুখ্যমন্ত্রী পদে দায়িত্ব নেওয়ার পর বেশ কয়েকবার রাজ্যটির নাম বদলের উদ্যোগ নিতে দেখা গেছে। কিন্তু কখনোই তা শেষ পর্যন্ত সফল হয়নি। বছর দুয়েক আগে ২০১৬ সালের আগস্টে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা পাস হয় বিধানসভায়। ওই প্রস্তাবনায় তিনটি পৃথক ভাষা বাংলা, হিন্দি ও ইংরেজিতে রাজ্যের নাম ‘বেঙ্গল’ করার সুপারিশ করা হয়। তখন প্রস্তাবনাটি কেন্দ্রে প্রত্যাখ্যাত হয়।

এরপর নতুন করে বিল পাস করলো মমতার সরকার। এই বিলে তিন ভাষায়ই রাজ্যের নাম ‘বাংলা’ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। অনেকের মত হচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ নামের মধ্যে পশ্চিম শব্দটি দেশভাগের ইতিহাসের দুঃসহ স্মৃতি বহন করে বিধায় সেটা মুছে ফেলার মানে হয় না।

কিন্তু রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ভাষার ওপর রাজ্যের নাম রাখায় যেমন আগ্রহী, তেমনি রাজ্যের ইংরেজি নাম ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল’ নিয়ে বেশ বিরক্তি প্রকাশ করেছেন বিভিন্ন সময়ে। বিধানসভায় নাম বদলের প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন তিনি নিজেই।

মমতা বলেন, বর্তমানে বাংলা, ইংরেজি ও হিন্দি ভাষায় রাজ্যের নাম তিনভাবে লেখা হয়ে থাকে। বাংলায় পশ্চিমবঙ্গ, ইংরেজিতে ওয়েস্ট বেঙ্গল ও হিন্দিতে বাঙ্গাল।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রাজ্যের একটি নাম নির্দিষ্ট করতে বলেছে। যেটি প্রত্যেকটি ভাষায় ব্যবহার করা যাবে। সেক্ষেত্রে বাংলা নামটিই পছন্দ করেন তিনি। তিনি বলেন, গোটা বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম ভাষা বাংলা। তাই রাজ্যের নাম বাংলা রাখাই প্রাসঙ্গিক।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*