প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / পাওয়া গেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রীকে
home-ad-620-x-90

পাওয়া গেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রীকে

অনলাইন ডেস্ক: ‘অপহরণের’ প্রায় এক মাস পর সন্ধান মিলেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রীর।

এরা হলেন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফের সহযোগী সংগঠটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক দয়াসোনা চাকমা।

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৮টায় খাগড়াছড়ি শহরের এপিবিএন স্কুল গেইট থেকে অপহরণকারীরা তাদের মুক্তি দেয় বলে ইউপিডিএফ নেতা মাইকেল চাকমা জানিয়েছেন।

গত ১৮ মার্চ সকালে রাঙামাটি সদর উপজেলার কুতুকছড়ি এলাকায় ইউপিডিএফের একটি মেসে সশস্ত্র হামলা চালিয়ে তাদের অপহরণ করা হয়েছে বলে সংগঠনটির জেলা সংগঠক সচল চাকমা এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন।

এ ঘটনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) সহ-সভাপতি নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শকিক্তমান চাকমাও ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিকের সভাপতি তপন জ্যোতি চাকমাসহ ১৯ জনকে আসামি রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন দয়াসোনা চাকমার বাবা বৃষধন চাকমা।

এ ঘটনায় ইউপিডিএফ ভেঙে গঠিত হওয়া ‘ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিককে’ দায়ী করে ইউপিডিএফ। তবে ইউপিডিএফ (গনতান্ত্রিক) বরাবরই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিল।

মুক্তি পাওয়ার বিষয়টি মন্টি চাকমার বড় ভাই সুভাষ চাকমাও নিশ্চিত করেছেন।

মাইকেল চাকমা বলেন, রাত পৌনে ৮টায় খাগড়াছড়ি শহরের এপিবিএন স্কুল গেট থেকে তাদের মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার হয়েছে।

ছাড়া পাওয়ার পর তারা অভিভাবকদের সঙ্গে বাড়ির পথে রওনা দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের দায়িত্বরত নিরন চাকমা বলেন, “তাদেরকে পরিবার ও জনপ্রতিনিধিদের কাছে মুক্তি দেয়া হয়েছে। এই বিষয়ে এখন আর কিছু বলতে চাই না।”

সুভাষ চাকমা বলেন, “তারা বাড়ি না পৌঁছা পর্যন্ত এই বিষয়ে কথা বলতে চাচ্ছি না। বিস্তারিত সকালে জানাব।”

হিল উইমেন্স ফেডারেশনের দুই নেত্রীর মুক্তির খবর জানেন না জানিয়ে রাঙামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর বলেন, “আমরা আপনাদের মাধ্যমেই খবর পেলাম। এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছি।”

 

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*