প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / দুই রানের কষ্টের হার
home-ad-620-x-90

দুই রানের কষ্টের হার

অনলাইন ডেস্ক  : মাশরাফি বিন মুর্তজার দুর্ধর্ষ ইনিংসের পরও জিততে পারলো না বাংলাদেশ। বুধবার শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট’স ইলেভেনের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে মাত্র দুই রানে হেরে গেল টাইগাররা। আজ নয় নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৩৫ বল খেলে চারটি চার ও চারটি ছয়ের সাহায্যে ৫৮ রান করেন টাইগার দলপতি।

কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে আজ সকালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ৩৫৪ রান সংগ্রহ করে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট’স ইলেভেন।

পরে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে আট উইকেট হারিয়ে ৩৫২ রান সংগ্রহ করে। দলের পক্ষে সাব্বির রহমান ৭২, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৭১, মাশরাফি বিন মুর্তজা ৫৮, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৫৩ ও সৌম্য সরকার ৪৭ রান করেন। স্বাগতিকদের পক্ষে আকিলা ধনঞ্জয়া ৩টি, চতুরঙ্গ ডি সিলভা ২টি, মিলিন্দা সিরিবর্দনে ১টি, লাহিরু মাদুশানকা ১টি ও বিনুরা ফার্নান্দো ১টি করে উইকেট নেন।

আজ বাংলাদেশের দলীয় ২৩৯ রানে সপ্তম উইকেটের পতন ঘটে। ৩৮.৫ ওভারে সানজামুল ইসলামকে ফিরিয়ে দেন আকিলা ধনঞ্জয়া। এরপরই ব্যাট করতে নামেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন ‍মুর্তজা। ক্যাপ্টেন যখন মাঠে নামেন বাংলাদেশের জিততে হলে তখন প্রয়োজন ছিল ৬৭ বলে ১১৬ রান।

এখান থেকে মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মিলে দলকে জয়ের স্বপ্ন দেখান। কিন্তু জিততে হলে বাংলাদেশের যখন প্রয়োজন ৯ বলে প্রয়োজন ১৫ রান তখন আউট হয়ে যান মাশরাফি বিন মুর্তজা। এরপরই দুই রানের কষ্টের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

টাইগাররা আজ ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই ইমরুল কায়েসকে হারায়। বিনুরা ফার্নান্দোর বলে উইরাক্কোদির হাতে ধরা পড়েন তিনি। এরপর সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান ১১৬ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। ইনিংসের ১৮তম ওভারে মিলিন্দা সিরিবর্দনের বলে দাসুন শানাকার হাতে ধরা পড়েন সৌম্য। তার ব্যাট থেকে আসে ৪৭ রান।

সৌম্য সরকার ফিরে গেলে সাব্বির রহমানও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। দলীয় ১২৪ রানে চতুরঙ্গ ডি সিলভার বলে থিসারা পেরেরার হাতে ক্যাচ হন তিনি। ৬৩ বল খেলে ৭২ রান করেন সাব্বির রহমান।

দলীয় ১৫২ রানে চতুরঙ্গ ডি সিলভার বলে দাসুন শানাকার হাতে ধরা পড়েন মুশফিকুর রহিম। তিনি করেন ২০ রান। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৬৬ রানের পার্টনারশীপ গড়েন। দলীয় ২১৮ রানে ধনঞ্জয়ার বলে মাদুশানকার হাতে ক্যাচ হন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তিনি করেন ৫৩ রান। এরপর শুভাগত হোম ও সানজামুল ইসলামকেও দ্রুত ফিরিয়ে দেন আকিলা ধনঞ্জয়া। তারপর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মাশরাফি বিন মুর্তজা অষ্টম উইকেট জুটিতে ১০১ রানের পার্টনারশীপ গড়েন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট’ইলেভেন: ৩৫৪/৭ (৫০ ওভার)

(দিলশান মুনাবিরা ২৪, কুসল পেরেরা ৬৪, সান্দুন উইরাক্কোদি ৬৭, মিলিন্দা সিরিবর্দনে ৩২, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ৫২, চতুরঙ্গ ডি সিলভা ২৮, থিসারা পেরেরা ৪১, দাসুন শানাকা ২৬*, লাহিরু মাদুশানকা ১*; মাশরাফি বিন মুর্তজা ১/৬৬, তাসকিন আহমেদ ১/৫১, আবুল হাসান ১/৩৫, সানজামুল ইসলাম ১/২৭, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ১/২৬)

বাংলাদেশ ইনিংস: ৩৫২/৮ (৫০ ওভার)

(ইমরুল কায়েস ০, সৌম্য সরকার ৪৭, সাব্বির রহমান ৭২, মুশফিকুর রহিম ২০, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ৫৩, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৭১*, শুভাগত হোম ২, সানজামুল ইসলাম ৫, মাশরাফি বিন মুর্তজা ৫৮, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ২*; বিনুরা ফার্নান্দো ১/৪৬, লাহিরু মাদুশানকা ১/৩৯, আকিলা ধনঞ্জয়া ৩/৬১, মিলিন্দা সিরিবর্দনে ১/৫৯, চতুরঙ্গ ডি সিলভা ২/৫৩)

 

 

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*