প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / সাভারে বন্দুকযুদ্ধে দুর্ধর্ষ ‘গাংচিল’ বাহিনীর প্রধান নিহত
home-ad-620-x-90

সাভারে বন্দুকযুদ্ধে দুর্ধর্ষ ‘গাংচিল’ বাহিনীর প্রধান নিহত

স্টাফ রিপোর্টার  :  সাভারের একটি বাড়িতে অভিযানের সময় র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে পুলিশ ও র‌্যাব হত‌্যার এক পলাতক আসামির মৃত‌্যু হয়েছে।

র‌্যাব বলছে, নিহত আনোয়ার হোসেন আনার (৪৫) গাংচিল বাহিনী নামে পরিচিত এক সন্ত্রাসী দলের প্রধান। তার বাড়ি সাভারের আমিন বাজার এলাকায়।

মঙ্গলবার গভীর রাতে কাউন্দিয়া ইউনিয়নের মেলারটেক এলাকার স্থানীয় লিয়াকত আলীর বাড়িতে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে বলে র‌্যাব-৩ এর মেজর মেহেদী হাসান জানান।

ওই বাড়ির মালিক লিয়াকত আলীর ছেলে টুটুলকে (২৮) আটক করেছে র‌্যাব। বলা হচ্ছে, টুটুল ছিলেন আনোয়ারের সহকারী।

র‌্যাব কর্মকর্তা মেহেদী বলেন, ২০০২ সালের ১২ জুলাই সাভার থানার এসআই মতিউর রহমান এবং ২০০৭ সালের ৩ মার্চ র‌্যাব-১১ এর ডিএডি হুমায়ুন কবীর ও সদস্য ফুল মিয়াকে হত্যা করে গাংচিল বাহিনী।

“এ সব হত্যার ঘটনায় আনোয়ারকে প্রধান আসামি করে মামলা হয়; এছাড়া তার বিরুদ্ধে সাভার থানায় হত্যাসহ বিভিন্ন অভিযোগে প্রায় একডজন মামলা রয়েছে।”

দুই র‌্যাব সদস‌্য খুন হওয়ার পর বিভিন্ন সময়ে গাংচিল বাহিনীর কয়েকজন সদস্য ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ নিহত হলেও বাহিনীর প্রধান আনোয়ার আত্মগোপনে ছিলেন বলে র‌্যাবের ভাষ‌্য।

“রাতে লিয়াকত আলীর বাড়িতে তার অবস্থানের খবর পেয়ে র‌্যাব সদস‌্যরা সেখানে অভিযানে যায়। এ সময় বাড়ি থেকে গুলি ছোড়া হলে আত্মরক্ষার জন‌্য র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এতে আনোয়ার গুলিবিদ্ধ হয়।”

আনোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে মেজর মেহেদী জানান।

পরে ওই বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে থেকে তিনটি পিস্তল ও ১৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

কাউন্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান খান শান্ত জানান, লিয়াকত আলীর তিন তলা বাড়িতে র‌্যাবের অভিযানের সময় পুলিশও উপস্থিত ছিল।

প্রয়াত লিয়াকত আলীর স্ত্রী মিনু বেগম বলছেন, গোলাগুলির সময় তাকে এবং তার ছেলে টুটুল, ছেলের বউ রোহানা ও মেয়ে রুনাকে একটি ঘরে আটকে রাখে র‌্যাব।

এ সময় র‌্যাব সদস্যরা তাদের মারধর করে তিনটি মোবাইল ফোন জব্দ করে এবং টুটুলকে আটক করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মেজর মেহেদী বলেন, তারা কাউকে মারধর করেননি।

সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজুর রহমান মিয়া বলেন, বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা সম্পর্কে তার কিছু  জানা নেই।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*