প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / সাভারে স্বাস্থ্য কর্মীর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার, স্বামী-শ্বশুর আটক
home-ad-620-x-90

সাভারে স্বাস্থ্য কর্মীর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার, স্বামী-শ্বশুর আটক

স্টাফ রিপোর্টার  :  ঢাকার সাভারে নিখোঁজের পাঁচ দিন পরে এক স্বাস্থ্য কর্মীর হাত-পা বাঁধা ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে আমিনবাজারের বড়দেশী গ্রামে তুরাগ নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে জানান আমিনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাছেদ মিয়া।

নিহত তানিয়া আক্তার লিজা (২৪) আমিনবাজারের সালেপুর এলাকার হযরত আলীর মেয়ে। তিনি আমিনবাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী ওমর ফারুক ও শ্বশুর মজিবুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ।

তানিয়া আক্তার লিজা

এসআই বাছেদ বলেন, গত ৪ জানুয়ারি তানিয়ার দেবর অপু পারিবারিক দ্বন্দ্ব মেটানোর কথা বলে মোবাইল ফোনে তাকে ব্যাংক কলোনি এলাকায় ডেকে নেয়। এরপর থেকেই তানিয়া নিখোঁজ ছিলেন।

শনিবার তানিয়া নিখোঁজের ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন তার ভগ্নিপতি মো. সোহরাব।

তিনি বলেন, সোমবার দুপুরে বড়দেশী গ্রামের তুরাগ নদীতে তানিয়ার হাত-পা বাঁধা লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

তানিয়াকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথকিভাবে ধারণা করছেন এসআই বাছেদ।

এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে নিহতের স্বামী ওমর ফারুক ও শ্বশুর মজিবুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। তাছাড়া অপুকেও আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*