প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / বেতারের নিরাপত্তা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ
home-ad-620-x-90

বেতারের নিরাপত্তা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি  :  সাভার রেডিও কলোনীর বাসিন্দা ধামরাইয়ে বাংলাদেশ বেতারের মহাশক্তি প্রেরন কেন্দ্রের নিরাপত্তা কর্মকর্তা এএসএম হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে নানান অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

বাংলাদেশ বেতারে টেকনিশিয়ান, শার্ট লিপিকার, অফিস সহকারী, এমএলএসএস (পিয়ন) ও হিসাব রক্ষন পদে লোক নিয়োগ দিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র রাতের আধারে তার লোকদের কাছে ফাঁস করে দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

ধামরাই বেতারের নিরাপত্তা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান

অভিযোগ রয়েছে, তিনি রেডিও কলোনী মডেল স্কুলের সহকারী শিক্ষক/শিক্ষিকা নিয়োগ পরীক্ষায় যারা উর্ত্তীণ হয়েছে তাদের নিয়োগ না দিয়ে মোটা অংকের টাকা নিয়ে অন্যদের নিয়োগ পাইয়ে দিয়েছেন। ভুক্তভোগী অনেকেই এ কথা স্বীকার করেছেন।

এছাড়া এএসএম হাফিজুর রহমানকে দূর্নীতির দায়ে সাভারের বেতার অফিস থেকে বদলি করার গুরুত্বপূর্ন তথ্য পাওয়া গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, ২০১৫সালের মার্চে বেতারের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নে কি থাকবে আগের দিন রাতে সে সবাইকে তা শিখিয়ে দেন। বিনিময়ে একেক জনের কাছ থেকে ৭/৮লাখ করে টাকা নিয়েছেন।

অভিযোগ উঠেছে, বাংলাদেশ বেতারের অফিস সহকারী ও উচ্চমান সহকারী পদে চাকুরী দেয়ার কথা বলে সাহাবুলের স্ত্রী কাজল রেখার সাথে ১০ লাখ টাকায় চুক্তি হয়। প্রথমে ৫লাখ টাকা নেন হাফিজুল। কিন্তু এর থেকে বেশী টাকা পেয়ে অন্যকে চাকুরী পাইয়ে দেন তিনি।

আরো অভিযোগ রয়েছে, চাঁপাইন এলাকার জয়নাল আবেদীনের মেয়ে রেডিও কলোনী স্কুলের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হলেও তাকে চাকুরী না দিয়ে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তামান্না ইয়াসমিন ও পারভীন আক্তারের চাকুরী পাইয়ে দেন। অথচ তারা দুজন নিয়োগ পরীক্ষায় পাশ করতে পারেনি।

হাফিজুর রহমানের বহুতল ভবন

রেডিও কলোনীর মডেল স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আহম্মেদ কামরুজ্জামানের সাথে আতাত করে হাফিজুর রহমান এ নিয়োগ বাণিজ্য করেছেন -এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এএসএম হাফিজুর রহমানের দূর্নীতি ও অনিয়মের বিষয়ে সাভার রেডিও কলোনীর মডেল স্কুলের প্রধান শিক্ষক এইচ এম শাহ আলম মিয়া কিছু কিছু শুনেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ বেতারের চতুর্থ শ্রেনী কর্মচারী ইউনিয়নের সেক্রেটারী নুরে আলম জানান, নিরাপত্তা কর্মকর্তা এএসএম হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ধামরাই বেতার কেন্দ্রের গাছ চুরি করে বিক্রিরও অভিযোগ রয়েছে। রয়েছে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ। বিভিন্ন দূর্নীতি ও অনিয়মের কারনে সাভার বেতার অফিস থেকে তাকে বদলি করা হয় বলেও জানান তিনি।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানাগেছে, সাভারের তিতাস গ্যাস অফিসের সামনে রয়েছে তার বহুতল একটি ভবন। ভবনটির চারতলা পর্যন্ত কাজ শেষ হলেও আরো দুই তলার কাজ চলছে।

জালেশ্বর মৌজায় রয়েছে তার একটি প্লট। এছাড়া নামে-বেনামে রয়েছে তার একাধিক সম্পত্তি ও ব্যাংক ব্যালেন্স।

তবে এএসএম হাফিজুর রহমান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি কোন দূর্নীতির সাথে জড়িত নই।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*