প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / নিরাপদে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী
home-ad-620-x-90
ফাইল ছবি

নিরাপদে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক: চার দিনের হাঙ্গেরি সফর শেষে নিরাপদে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ভিভিআইপি ফ্লাইটটি বুধবার রাত ১১টার দিকে হজরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

হাঙ্গেরি যাত্রার পথে তুর্কমেনিস্তানে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানের জরুরি অবতরণের ঘটনার পর ফেরার পথে সব প্রস্তুতিতে বাড়তি নজরদারি করেছে বাংলাদেশ বিমান। যে বিমানে করে প্রধানমন্ত্রী হাঙ্গেরি গিয়েছিলেন ফিরতি পথে তিনি আর সেটি ব্যবহার করেননি।

স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টায় (বাংলাদেশ সময় সোয়া ৩টায়) বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ভিভিআইপি ফ্লাইটে প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীরা বুদাপেস্ট ফিরেন্স লিজট ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট থেকে দেশের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানাতে অন্যান্যের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানা এবং হাঙ্গেরিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম আবু জাফর বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন। এর আগে হাঙ্গেরির সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করে।

হাঙ্গেরি সফরকালে শেখ হাসিনা সোমবার দুই দিনব্যাপী বুদাপেস্ট পানি (বিডব্লিউএস-২৯১৬) সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন। এছাড়াও তিনি হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান এবং প্রেসিডেন্ট জানোস এডারের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেন। শেখ হাসিনা বুদাপেস্টের সিটি পার্কে হিরোস স্কয়ারে হাঙ্গেরির জাতীয় বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী সম্মেলনে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে এবং প্রেসিডেন্ট জানোস এডার আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন। একইদিন প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-হাঙ্গেরিয়ান বিজনেস অ্যান্ড ইকোনোমিক ফোরামের উদ্বোধন করেন।

বাংলাদেশ বিমানের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক শাকিল মেরাজ ঢাকাটাইমসকে জানান, বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় বুদাপেস্টের ফিরেন্স লিজট বিমানবন্দর থেকে রওয়ানা দেন। তিনি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং সেভেন সেভেন সেভেন বিমান দিয়ে রওয়ানা হন। এই বিমানের নাম ‘আকাশ প্রদীপ’।

প্রধানমন্ত্রী হাঙ্গেরি যাওয়ার সময় ব্যবহার করেছিলেন বিমানের বোয়িং সেভেন সেভেন সেভেন থ্রি হানড্রেড ইআর উড়োজাহাজ। এর নাম ছিল ‘রাঙা প্রভাত’।

গত রবিবার হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী রাঙা প্রভাত কারিগরি ত্রুটির কারণে তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়। এই খবরটি ছড়ানোর পর দেশজুড়ে উদ্বেগ উৎকণ্ঠার তৈরি হয়। বিমানের কর্মকর্তারা জানান, ইঞ্জিনের অয়েল প্রেসার কমে যাওয়ায় জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়েছিলেন তারা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে কারিগরি ত্রুটির জন্য ইতোমধ্যে ছয়জনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এরা হলেন- বিমানের প্রকৌশল বিভাগের কর্মকর্তা এসএম রোকনুজ্জামান, সামিউল হক, লুৎফর রহমান, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস, জাকির হোসাইন, সিদ্দিকুর রহমান।

বুধবার সন্ধ্যায় বিমানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএম মোসাদ্দিক আহমেদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

 

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*