প্রচ্ছদ / লীড নিউজ / প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটি: পাঁচ জনের অবহেলার প্রমাণ
home-ad-620-x-90

প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটি: পাঁচ জনের অবহেলার প্রমাণ

অনলাইন ডেস্ক: হাঙ্গেরির পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে কারিগরি ত্রুটির জন্য পাঁচ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয়। বিকালে মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন জানান, এদের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ মিলেছে। তবে কোন পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অবহেলার প্রমাণ মিলেছে সেটি প্রকাশ করেননি মন্ত্রী।

গত রবিবার হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানটি তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণে বাধ্য হয়। বিমানটির অয়েল প্রেসার কমে গিয়েছিল বলে ঢাকাটাইমস জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিমানের চেয়ারম্যান ইনামুল বারী।

সোমবারই এই ঘটনা তদন্তে তিনটি কমিটি গঠন করা হয়। এর দুটি করে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ এবং অপরটি করে মন্ত্রণালয়। এর একটি কমিটি বিকালে প্রতিবেদন জমা দেয়। পরে এ নিয়ে কথা বলেন মন্ত্রী মেনন।

বিমানমন্ত্রী বলেন, তারা তিনটি বিষয়টি সামনে রেখে তদন্তে নেমেছিলেন। একটি আবহাওয়া, দ্বিতীয়টি কারিগরি জটিলতা এবং তৃতীয়টি মানবিক অবেহলা। মেনন বলেন, ‘তিনটি ফ্যাক্টরের মধ্যে হিউম্যান ফেইলর ফ্যাক্টর প্রমাণিত হয়েছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘এই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী ও দায়িত্বশীলদের অবহেলার অভিযোগ প্রমাণ হয়েছে। আমরা পাঁচ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি। আরও দুই এক জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।’

পাঁচ জনের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে-জানতে চাইলে মেনন বলেন, তাদেরকে সাময়িক বরাখাস্ত করা হচ্ছে।

তিন দিনের হাঙ্গেরি সফর শেষে এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন। তবে সফরে যাওয়ার অভিজ্ঞতার কারণে ফিরতি পথে বাড়তি সতর্ক বিমান।

ফিরতি পথে বিমান পাল্টে তুলনামূলক নতুন একটি উড়োজাহাজ ব্যবহার করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী হাঙ্গেরি যাওয়ার সময় ব্যবহার করেছিলেন বিমানের বোয়িং সেভেন সেভেন সেভেন থ্রি হানড্রেড ইআর উড়োজাহাজ। এর নাম ছিল ‘রাঙা প্রভাত’। আর ফেরার পথে ব্যবহার করা হচ্ছে বোয়িং সেভেন সেভেন সেভেন। এই নাম ‘আকাশ প্রদীপ’।

web-ad

আপনার মতামত দিন

আপনার ই-মেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না, এই চিহিৃত ঘরটি অবশ্যই পূরণ করতে হবে *

*